বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:২৫ অপরাহ্ন

অস্ত্র মামলায় নূর হোসেনের যাবজ্জীবন : চাঁদাবাজি মামলায় খালাস

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ৩০ জন পড়েছেন
বুধবার, ৬ জানুয়ারী, ২০২১, ৩:২৮ অপরাহ্ন
অস্ত্র মামলায় নূর হোসেনের যাবজ্জীবন : চাঁদাবাজি মামলায় খালাস

নারায়ণগঞ্জের সাত খুন মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনের একটি অস্ত্র মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি একটি চাঁদাবাজি মামলায় তাকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (৬ জানুয়ারি) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক সাবিনা ইয়াসমিন এ রায় দেন।

আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর জাসমিন আক্তার জানান, ২০১৪ সালের ৩ আগস্ট সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় রেললাইনের পাশ থেকে নূর হোসেনের অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশ মামলা করলে সেই মামলায় ৬ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন। মামলায় একমাত্র আসামি ছিলেন নূর হোসেন।

তিনি জানান, একই আদালতে আকরাম নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৪ লাখ টাকা চাঁদাবাজির ঘটনায় আকরামের করা মামলায় খালাস দেওয়া হয়েছে নূর হোসেনকে।

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান জানান, সকালে নূর হোসেনকে আদালতে নিয়ে আসা হয়। একটি অস্ত্র মামলায় নূর হোসেনকে যাবজ্জীবন ও একটি চাঁদাবাজি মামলায় তাকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের সাতখুনের ঘটনায় ২০১৪ সালের ২৮ এপ্রিল ফতুল্লা মডেল থানায় নুর হোসেনকে প্রধান আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। মামলার কারণে তৎকালীন নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো: আনিছুর রহমান মিঞা একই বছরের ৫ মে নুর হোসেন ও তার সহযোগিদের নামে লাইসেন্সকৃত সকল আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল ঘোষণা করেন। এবং আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলিসমুহ জব্দ করে হেফাজতে নেয়ার নির্দেশ প্রদান করেন। পরে পুলিশ নুর হোসেনের সহযোগিদের বাতিলকৃত লাইসেন্সের আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবরুদ জব্দ করে। এবং নুর হোসেনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে অস্ত্র দুটি (একটি পিস্তুল ও একটি বাইশ বোরের রাইফেল) জব্দের চেষ্টা চালানো হয়। পরবর্তীতে আদালতের নির্দেশে নুর হোসেনের অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোক করার সময় অস্ত্র দুটি পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ অস্ত্র দুটি জব্দের জন্য অভিযান অব্যাহত রাখে।

 

এদিকে ২০১৪ সালের ১ আগস্ট রেলওয়ে থানা পুলিশ রাজধানীর মালিবাগ বাজার রেলক্রসিং থেকে অস্ত্র, গুলি ও মালামাল উদ্ধার করে। তারমধ্যে নুর হোসেনের বাতিলকৃত লাইসেন্সের এনপিবি পিস্তুলটি পাওয়া যায়। ২ আগস্ট রেলওয়ে থানায় অস্ত্র আইনে মামলা রুজু হয়।

 

৫ মে নুর হোসেনের আগ্নেয়াস্ত্র দুটির লাইসেন্স বাতিল হয়। ১ আগস্ট দুটি আগ্নেয়াস্ত্রের মধ্যে এনপিবি পিস্তলটি ঢাকা রেলওয়ে থানা পুলিশ কর্তৃক মালিবাগ বাজার রেলক্রসিং থেকে উদ্ধার হয়। এতে দেখা যায় নুর হোসেন তার অস্ত্রটি বাসায় না রেখে হস্তান্তর করেছে। আসামী নুর হোসেনের আগ্নেয়াস্ত্র দুটির লাইসেন্স বাতিলের আদেশ ঘোষণা হওয়ার পরও সে তার আগ্নেয়াস্ত্র দুটি গুলিসহ যথাস্থানে জমা প্রদান করেনি। বরং অস্ত্র আইনের বিধি লঙ্ঘন করে বাতিলকৃত লাইসেন্সের আগ্নেয়াস্ত্র এনপিবি পিস্তল ও ২২ বোর রাইফেল গুলিসহ অবৈধভাবে হেফাজতে রেখেছে। এরমধ্যে পিস্তলটি হস্তান্তর করেছে। যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ বিধায় নুর হোসেনের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় ৩ আগস্ট নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নাম্বার-৩।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ বিভাগের আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Translate »
Translate »