সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন

মহানগর বিএনপির কার্যক্রম স্থগিত চেয়ে আদালতে আবেদন

রিপোর্টার : / ৬০৮১ জন পড়েছেন
বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯, ১১:৫০ অপরাহ্ন

কোর্ট প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কমিটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা দায়েরের পর এবার কমিটির কার্যক্রমের উপর স্থগিতাদেশ চেয়ে আবেদন করেছেন মামলার বাদি বিএনপি সমর্থক গুলজার হোসেন খান। গতকাল বুধবার নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র সহকারি জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক শিউলী রানী দাসের আদালতে এ আবেদন করা হয়। উভয় পক্ষের মধ্যে এ নিয়ে শুনানী অনুষ্ঠিত হলেও আদালত গতকাল বিকেল পর্যন্ত এ বিষয়ে কোন আদেশ প্রদান করেননি।
এর আগে গত ১২ নভেম্বর গুলজার হোসেন খান নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কমিটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ স্থানীয় বিএনপির ৫ নেতাকে বিবাদী করে একই আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলাটি গ্রহণ করে বিচারক গত মঙ্গলবার আদালতে হাজির হয়ে জবাব দিতে বিবাদীদের সমন জারি করে। মঙ্গলবার বিবাদীরা আদালতে হাজির হলেও বাদি উপস্থিত হননি। এ মামলার নিয়মিত শুনানীর দিন ধার্য রয়েছে আগামী বছরের ১৬ জানুয়ারি।
নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির নবগঠিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবু আল ইউসুফ খান টিপু বলেন, সরকারী দলের এজেন্ডা বাস্তবায়নে দলের মধ্যে ঘাটপটি মেরে থাকা একটি পক্ষ এই মামলা দায়ের করিয়েছে। যদিও এই মামলার যিনি বাদি তার এ ধরণের মামলা করার কোন এখতিয়ারই নেই। কারণ বাদি গুলজার খান বিএনপির কোন ইউনিটের নেতৃত্বে নেই। তাই তার মামলা গ্রহণযোগ্য নয়। তার পেছনে দলেরই কেউ ইন্ধন দিয়ে এ ধরণের হীন্যকাজ করাচ্ছে।
তিনি আরও বলেন, আগামী বছরের ১৬ জানুয়ারি মামলার শুনানী অনুষ্ঠিত হবে। সেই পর্যন্ত কমিটির কার্যক্রমের উপর স্থগিতাদেশ চাওয়া হয়েছে। আদালত কোন আদেশ দেননি। আদালতের আদেশ পেলে পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হবে।
উল্লেখ্য, গত ১২ নভেম্বর গুলজার খান নামে এক ব্যক্তি বাদি হয়ে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির কমিটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, মহানগর বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবুল কালাম, সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল, জেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান মনির, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদকে বিবাদী করা হয়েছে।


এ বিভাগের আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Translate »
Translate »