বুধবার, ১২ অগাস্ট ২০২০, ০৬:৪২ অপরাহ্ন

সিদ্ধিরগঞ্জে র‌্যাবের জালে কাউন্সির মতির দুই কর্মী

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: / ৮৩৮ জন পড়েছেন
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৩ জুলাই, ২০২০, ২:৫০ পূর্বাহ্ন

নাসিকের সিদ্ধিরগঞ্জে ৬নং ওয়ার্ডে প্রতিপক্ষকে বোমা ও অস্ত্র দিয়ে ফাঁসাতে গিয়ে উল্টো র‍্যাবের জালে ফেঁসে গেছে দুই মাদক ব্যবসায়ি। তারা হলো-বাবু ও তার সহযোগি জুয়েল। তারা নাসিক প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর মতিউর রহমানের কর্মী। এরমধ্যে বাবু কাউন্সিলর মতির অফিস সহকারী। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকালে ৬নং ওয়ার্ডের সুমিলপাড়া রেললাইন এলাকায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নাসিক ৬নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম মন্ডলের সাথে বর্তমান কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র মতির দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধের জের ধরে এক পক্ষ আরেক পক্ষকে ফাঁসাতে নানা কৌশল অবলম্বন করেন। সংঘাত, সংঘর্ষ, হামলা-মামলার ঘটনাও ঘটেছে বেশ কয়েকবার।

এদিকে আদমজী সুমিলপাড়া এলাকার এক সময়ের মাদকব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত ফারুক হোসেন ওরফে ইয়াবা বাক্কু। সে সাবেক কাউন্সিলর সিরাজ মন্ডলের সহযোগী হিসেবে এলাকায় পরিচিত। একসময় মাদক ব্যবসা করে একাধিকবার পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়। পরে জামিনে বেরিয়ে ভিন্ন ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। কিন্তু কাউন্সিলর মতিউর রহমানে অফিসের কর্মচারী বাবু ওরফে মাদক ব্যবসায়ী বাবুর সাথে দীর্ঘদিন ধরে বাক্কুর মধ্যকার বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে বুধবার মাদক ব্যবসায়ি বাবু পরিকল্পনা মতো বাক্কুর বাসার পেছনে পেট্টোল বোমা ও দেশীয় অস্ত্র রেখে দেয়। এবং র‌্যাব-৩কে জানায় বাক্কুসহ সন্ত্রাসী সংঘবদ্ধ হয়েছে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটানোর জন্য। তাদের কাছে পেট্টোল বোমা ও অস্ত্র রয়েছে। খবর পেয়ে র‌্যাব সুমিলপাড়া এলাকায় এসে বাক্কুর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। এবং পুরো বাসা তল্লাশির পর বাক্কুকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এসময় বাক্কু র‍্যাবকে জানায়, একসময় সে মাদক ব্যবসা করলেও এখন এসব করে না। পরে র‍্যাব বাক্কুকে নিয়ে তল্লাশি করে বাক্কুর বাসার পেছন থেকে পেট্টোল বোমা ও দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে। বাক্কু জানায়, এসব বিষয়ে সে কিছুই জানে না।

এদিকে ঘটনার ক‚লকিনারা না পেয়ে বাক্কুর কথামতো র‍্যাবকে তথ্য দেয়া বাবুর দিকে সন্দেহের চোখ যায় র‍্যাবের। পরে বাবুকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর সে জানায় বাক্কুকে ফাঁসাতে পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী সে এ নাটক সাজিয়েছে। এবং নিজেই মাদক রেখে বাক্কুকে ফাঁসাতে চেয়েছে। এসময় র‍্যাব বাবু ও তাঁর সহযোগী জুয়েলকে গ্রেফতার করে। পরে বাক্কুকে ছেড়ে দেয় র‌্যাব।

এ বিষয়ে র‌্যাব-৩ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি কিছু লোক পেট্টোল বোমা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘবদ্ধ হচ্ছে। সামনে কোরবানীর ঈদ। ঈদকে ঘিরে কোরবানীর পশুর হাটে আসা গরু ভর্তি ট্রাক ছিনতাই, বা বেপারীদের কাছে থাকা গরু বিক্রির টাকা ছিনিয়ে নেয়ার একটা প্লাস ছিল। পরে র‌্যাব-৩ এর একটি টিম অভিযানে যায়। এবং দুইজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। তাদের একজনের নাম বাবু ও অপর জনের নাম জুয়েল। তাদের দুইজনের বয়স ২৭ থেকে ২৮ বছর হবে। তাদের কাছ থেকে চাপাতি, রাম দা, পেট্টো বোমা, চাইনিজ কুড়াল উদ্ধার করা হয়েছে।

অভিযানের নেতৃত্ব দেয়া র‍্যাব-৩’র কর্মকর্তা রাসেল জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ওদিকে বোমা ও অস্ত্র দিয়ে প্রতিপক্ষের লোককে ফাঁসানোর চেষ্টার ঘটনা নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃস্টি হয়েছে। তার বিষয়টিকে বর্তমান কাউন্সিলরের ইন্দনে হয়েছে বলে করছেন। এবং ঘটনার সঠিক তদন্ত করে জড়িত সকলকে আইনের আওতায় আনার জন্য র‌্যাব-৩ এর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


এ বিভাগের আরও খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
Translate »
Translate »