আইভী বলয়কে দূর্বল করতে বন্দরে সংরক্ষিত আসনগুলোতে একাধিক প্রার্থী

আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বন্দরে ২২,২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর হিসেবে একাধিক প্রার্থী হতে দেখা গেছে অনেককেই। এদের মধ্যে সম্ভাব্য মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থী শাহানাজ বেগম,ডলি আক্তারের নামও বেশ জোরে সোরেই শুনা যাচ্ছে ।

 

তবে এবার মেয়র বলয়কে দূর্বল করতেই বন্দরে সংরক্ষিত মহিলা আসনগুলোতে একটি পক্ষের এমন আয়োজন। উল্লেখিত ওয়ার্ডগুলোর বিভিন্ন এলাকাতে ইতিমধ্যে তারা দেয়ালে পোষ্টার লাগিয়ে প্রচারনা শুরু করে দিয়েছেন। কেউ কেউ দলীয় কর্মী সভায় নেতাদের নজর কাড়তে লিফলেটও বিলি করছেন। নগরীর অলি-গলিতে তারা নির্বাচনী প্রচারনায় মেতে উঠেছেন।

 


জানাগেছে,নাসিক ২২,২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে পুরুষ ভোটার ও মহিলা ভোটারসহ মোট ভোটার রয়েছে প্রায় ৬০হাজার। তবে স্মার্ট কার্ড দেওয়ার পর আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

 


স্থানীয় এক গৃহিনী রোকেয়া বেগম জানান,আসন্ন সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ২২,২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে ক্ষমতাশীণ একটি পক্ষ দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য বিভিন্ন সভা মঞ্চে আবুল তাবুল বকছে। বিগত সময়ে একজন নবাগত প্রার্থীর কাছে বিপুলভোটে হেরে যায় সে। তার পরাজয়ের কারন ছিল স্বেচ্ছাচারিতা ও দাম্ভিকতা। পূণরায় সে নির্বাচন করার সুরগোল ভেসে বেরাচ্ছে।

 

তবে এবার সে সাধারন প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দীতা করবে বলে জানা গেছে। কিন্তু তার মনোনীত আরেক মহিলা প্রার্থীকে সে এবার ২২,২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে মেয়র বলয়ের কাউন্সিলর শাওন অংকনকে পরাস্ত করতে নির্বাচন করার জন্য প্রস্তুত করছে। আমরা ক্লিয়ার করে বলতে চাই দল-মত নির্বিশেষে পূণরায় শাওন অংকনকেই আমরা নির্বাচিত করব। যাকে সবসময় কাছে পাই,যার মধ্যে কোন অহংকার নাই। নারী-পুরুষ নির্বিঘেœ যার সাথে নাগরিকদের সুখ-দু:খ ভাগ করে নিতে পারে সেটা একমাত্র শাওন অংকনকে দিয়েই সম্ভব। শাওন অংকনের বিকল্প বন্দরে নাই।  

 


এদিকে উল্লেখিত ওয়ার্ডের এক নারী ভোটার জানান,নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বরাবরই সুষ্ঠ ও অবাধ নির্বাচন হয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে সাধারন ভোটারদের ব্যালটের মাধ্যমেই জয়-পরাজয় নির্ভর করবে। আর এই নির্বাচন হচ্ছে স্থানীয় নির্বাচন। এখানে জনগন যাকে বিজয়ী করবে সেই জনপ্রতিনিধি হতে পারবে।

 

২২,২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর শাওন অংকন বিগত সময়গুলোতে খুবই ভাল কাজ করে সাধারন ভোটারদের কাছে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। পাশাপাশি সে খুবই সদালাপী,মিষ্টভাষী একজন নারী। দেশের দূর্যোগকালীন সময়ে (করোনা) কাউন্সিলর শাওন অংকন সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পাশে থেকে সহায়তা করেছে। বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসায়ও ব্যাক্তিগতভাবে অনেক অনুদান রয়েছে।

আরও পড়ুন: নারায়ণগঞ্জে ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ১, আক্রান্ত ৩৫

 

মহিলা কাউন্সিলর শাওন অংকন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভীর আস্তাভাজন হওয়ায় অনেকের গাত্রদাহ।  অনেকে শাওন অংকনের বিশোধাগার করে থাকে। এতে কাউন্সিলর জনপ্রিয়তা আরো বাড়ছে বলে মনে করি। আমরা পূণরায়  ২২,২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর হিসেবে শাওন অংকনকে পেতে চাই।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন