মুসলিম ফুটবলারদের সামনে মদের বোতল রাখা হবে না

ইউরোর এবারের আসরের শুরুর দিকে সংবাদ সম্মেলনে হাজির হয়ে কোমল পানীয় কোকাকোলার বোতল বিরক্তিভরে সরিয়ে আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছিলেন পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।

তার ওই ঘটনার পর মাত্র আধাঘণ্টার মধ্যে অবিশ্বাস্যভাবে কোকাকোলার ব্র্যান্ড দর কমে যায় ৪০০ কোটি ডলার।

বিষয়টি নিয়ে যখন বিশ্বব্যাপী আলোচনার ঝড় বইছিল, তখনই একই রকম কাণ্ড ঘটান ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফরাসি তারকা পল পগবা।

তবে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় কোমল পানীয় নয়, ধর্মীয় অনুশাসন মানতে বিরক্তিভরে বিয়ারের বোতল সরিয়ে দেন পগবা।

সেই ঘটনার পর উয়েফা কর্তৃপক্ষ নড়েচড়ে বসে। স্পন্সর হওয়া এসব কোম্পানির কৌশলের অংশ হিসেবে রাখা পানীয়ের বোতল না সরেতে নির্দেশ দেয় ফুটবলারদের।

তবে পল পগবার বিষয়ে উয়েফা অন্যরকম সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মুসলিম ফুটবলারদের সামনে মদ বা বিয়ারের বোতল না রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। ইংরেজি সংবাদমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

ইউরো কাপের আয়োজকরা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, সামনের দিনগুলোতে আর কোনো মুসলিম ফুটবলারদের সামনে বিয়ার বা মদের বোতল রাখা হবে না। সংবাদ সম্মেলন শুরুর আগেই কোন খেলোয়াড় আসছেন এবং তার সামনে বিয়ার বা মদের বোতল রাখা যাবে কিনা, সে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে নেবে উয়েফা।

খেলোয়াড় মুসলিম হলে বা তার আপত্তি থাকলে সামনে মদ বা বিয়ারের বোতল রাখা হবে না।

ইতোমধ্যে বিষয়টি চর্চিত হয়েছে। গত বুধবার রাতে পর্তুগালের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করে ফ্রান্স।

সেই ম্যাচে জোড়া গোল করে স্টার অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন ফরাসি স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা। ম্যাচপরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে আসেন তিনি। সেখানে তার সামনে কোনো বিয়ারের বোতল রাখেননি আয়োজকরা।

 

আরো পড়ুন: হজের অনুমতি পাওয়া ৬০ হাজার সৌভাগ্যবানের নাম জানাবে সৌদি

বোঝা গেলে পল পগবার ছোট্ট এক পদক্ষেপেই ইউরো কাপের আয়োজকরা মুসলিম ফুটবলারদের সামনে মদের বোতল না রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
 

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন