সিরিয়া থেকে জার্মানিতে ১১ 'আইএস নারী'

জার্মানি বলছে তারা উত্তর সিরিয়ার একটি শিবির থেকে আটজন নারীকে তাদের দেশে ফিরিয়ে এনেছে, যারা কথিত ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দিয়েছিলেন।
তাদের সঙ্গে ২৩টি শিশুকেও ওই শরণার্থী শিবির থেকে ফেরত আনা হয়েছে। খবর বিবিসির।

ডেনমার্কের সঙ্গে এক যৌথ তৎপরতার অংশ হিসাবে জার্মানি তাদের ফেরত এনেছে। ডেনমার্কও ৩ নারী এবং ১৪ শিশুকে ফেরত নিয়েছে বলে জার্মান কর্মকর্তারা জানাচ্ছেন।

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেইকো মাস বলেছেন, জার্মানিতে ফেরত আনা এই নারীরা এখন কর্তৃপক্ষের হেফাজতে রয়েছেন এবং তাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি তদন্ত করা হবে।

সিরিয়ায় গিয়ে আইএসে যোগ দেওয়া কয়েকশ' ইউরোপীয় এখন উত্তর সিরিয়ায় কুর্দী নিয়ন্ত্রিত শিবিরগুলোতে রয়েছেন।

২০১৯ সালের মার্চে সিরিয়া এবং ইরাকে আইএস আঞ্চলিকভাবে পরাজিত হয়েছে বলে ঘোষণা দেওয়ার অভিযুক্ত এই আইএস যোদ্ধাদের পরিবারের সদস্যরা এবং বাস্তুচ্যুত কয়েক হাজার মানুষকে এই শিবিরগুলোতে স্থানান্তর করা হয়।

জার্মানির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে উত্তর পূর্ব সিরিয়ার রজ আটক শিবির থেকে আসা নারী ও শিশুরা গত বুধবার ফ্র্যাংকফুর্ট বিমানবন্দরে নামেন।

আরো পড়ুন: কর্মসংস্থানের গতি শ্লথ কমেছে বিনিয়োগ

মন্ত্রী মাস বলেন, তারা জার্মানিতে ফেরত আসায় তিনি 'খুশি', কিন্তু এই মায়েদের তাদের কৃত কর্মের জন্য জবাবদিহি করতে হবে। শিশুরা তাদের পরিস্থিতির জন্য দায়ী নয়।

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন