সোনারগাঁয়ে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের উপর জাতীয় পার্টির হামলা।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলা পরিষদের উপ- নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিলের জন্য উপজেলা কার্যালয়ে যাওয়ার পথে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উপর জাতীয় পার্টির হামলা ও গাড়ী ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে।

 

 (১৩ সেপ্টেম্বর) সোমবার বিকাল সাড়ে তিনটার দিকে সোনারগাঁও থানার রোডের সরকারি খাদ্য গুদামের সামনে এই হামলার ঘটনা ঘটে।


অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,উপজেলা পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার মোঃ আব্দুল হালিম সিএনজি ও মটর সাইকেলে চড়ে আওয়ামী লীগ সমর্থিত লোকজন নিয়ে সোনারগাঁও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী এডভোকেট শামসুল ইসলাম ভূঁইয়ার মনোনয়ন দাখিল অনুষ্ঠানে যোগদান করতে যাচ্ছিলেন।

 

সোনারগাঁও থানার রোডের সরকারি খাদ্য গুদামের সামনে পৌঁছালে। নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার ভাতিজা মোঃ শামীম রেজার নেতৃত্বে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সিএনজি ও মটর সাইকেল গতিরোধ করে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

 

সোনারগাঁ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা জানান এ বিছিন্ন ঘটনা আমাদের  কোন রাজনৈতিক প্রতিহিংসা নয় আমি খোজ খবর নেয়েছি পিরোজপুর  ইউনিয়নে তাদের পারিবারিক কোন্দল ছিল। সঠিক ভাবে তদন্ত করে দোষীদের আইনের আওতায় আনা হোক।

 

এসময় হামলাকারীরা পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার মোঃ আব্দুল হালিম সহ অন্তত পাঁচজনকে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে এবং তাদের বহনকারি সিএনজি ও মটর সাইকেল ভাংচুর করে প্রায় এক লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করে।


এসময় হামলাকারীরা আহত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে থাকা দুইটি মোবাইল ফোন ও ৫৭ হাজার টাকা নিয়ে যায়।


পরে এঘটনায় আহত সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ আব্দুল হালিম বাদী হয়ে ১৬ জনের নাম উল্লেখ ও আরো ৪০/৪৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি দেখিয়ে সোনারগাঁও থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

আরও পড়ুন: খাজা মহিউদ্দিনের মুত্যু: আইভীর শোক


এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান জানান,হামলার ঘটনায় মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। উল্লেখিত আসামিদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

মন্তব্যসমূহ (০)


Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন